ইন্টারভিউ Archives - ফিনটেক বাংলা
You are here
Home > ইন্টারভিউ

‘নারীদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে বেগম হবে ডিজিটাল বাংলাদেশের নিরেট মঞ্চ’

রাখশান্দা রুখাম তরুণ নারী উদ্যোক্তাদের একজন যিনি প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের নারীদের ক্ষমতায়ন নিয়ে কাজ করছেন মাত্র ২১ বছর বয়স থেকে। রাখশান্দা 'উইমেন টেকমেকার্স বাংলাদেশ' এর একজন অগ্রদূত এবং ৩০০০ এর বেশি সদস্য রয়েছে যারা বাংলাদেশকে বিশ্বদরবারে নিয়ে যাওয়ার জন্য মুখ্য ভূমিকা পালন করছে। তিনি 'বেগম.কো' নামে একটা সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেছেন যার

‘প্রযুক্তির কল্যানে স্বাস্থ্য খাতে প্রতিটি মানুষের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করাই হবে আমাদের প্রতিশ্রুতি’

সাজিদ রহমানের সাথে সাক্ষাৎকার।  সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন মিজানুর রহমান ও সাকিব সরকার। মূল সাক্ষাৎকারটির অনুবাদ করেছেন অনন্য রাজ্জাক।  সাজিদ রহমান বিশ্বের ইমার্জিং মার্কেটে একজন নেতৃস্থানীয় ব্যবসায়ী যিনি বর্তমানে টেলিনর গ্রূপের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য উদ্যোগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন এবং টেলিনর হেলথের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন।এছাড়াও তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র,এশিয়া এবং যুক্তরাজ্যে প্রযুক্তি ও শক্তি সংস্থার

‘আমার স্বপ্ন বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিক একদিন প্রযুক্তির দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে যাবে’

সোনিয়া বশির কবিরের একটি অনন্য সাক্ষাৎকার।  সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন সাকিব সরকার এবং মিজানুর রহমান।   সোনিয়া বশির কবির সম্পর্কে নতুন করে কিছু বলার নেই। নারীদের রোল মডেল হিসেবে যদি তাকে তুলে ধরা হয়, সেটাও কম বলা হবে কেননা প্রযুক্তির এই বিশ্বে যেকোনো পেশার ক্ষেত্রে  তিনি নারী ও পুরুষ উভয়েরই রোল মডেল। মিস কবির,

‘মানুষের চেয়ে স্বপ্ন বড় নয়’

অ্যাসসিউর গ্রূপের চেয়ারম্যান জনাব মো শেখ সাদির সাথে ফিনটেকের চমৎকার একটি সাক্ষাৎকার। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন অনন্য রাজ্জাক।  গুলশান ১ এর জব্বার টাওয়ারে ঢুকে লিফটের ৫। লিফটের দরজা খুলেই রিসেপশন রুম দেখা গেলো। কম্পানির নির্বাহী পরিচালক, শাহেন শাহ সাহেব, নিয়ে গেলেন চেয়ারম্যান সাহেবের রুমে। দরজা খুলতেই রাজসিংহাসনের মতো চেয়ারে বসে আছেন মধ্যবয়সীর চেয়েও কম

‘ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম নিয়ে পাবলিক রিলেশান এজেন্সিগুলোর আরো বেশি কাজ করা দরকার’

ফিনটেকের সাথে মানজেনো রায়হান খানের একটি সুন্দর কথোপকথন কনসিটো পিআর এর অন্যতম তরুণ শেয়ার হোল্ডার মানজেনো রায়হান খান প্রতিষ্ঠানটির হেড অভ অপারেশনের দায়িত্ব পালন করছেন। অত্যন্ত প্রতিভাবান এবং বৈচিত্রের উপমায় উপমিত রায়হান খান বেশ কর্মপটু একজন মানুষ। কাজের প্রতি আন্তরিকতা এবং দূরদৃষ্টি মনোভাবের কারণে তাকে আজকের এই অবস্থানে নিয়ে এসেছে। তিনি

‘পূর্বের এয়ারলাইনসের ব্যর্থতা থেকে ইউএস-বাংলা দীক্ষা নিয়ে সফলতার পথে এগিয়ে চলেছে’

শাহ জালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (এস ইউ এস টি ) থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর সমাপ্ত করার পর ১৯৯৮ সালে জিএমজি এয়ারলাইন্সের বিপণন ও পিআর এর সহকারী পরিচালক হিসেবে কামরুল ইসলাম তার কর্মজীবন শুরু করেন। প্রায় সাত বছর সেখানে কাজ করার পর তিনি এয়ার লাইনসে কাজ শুরু করেন। উইন্ড

‘প্রযুক্তির স্পর্শে ব্যাংকিং সুবিধাগুলো এখন গ্রাম বাংলায় পৌঁছে গেছে’

নামফলক এবং ডেটলাইন এর মধ্যেই একটা গল্প লুকিয়ে আছে। কক্ষ এবং দেওয়ালগুলির মধ্যে একটি নির্দিষ্ট শক্তির আবির্ভাব বেশ লক্ষণীয়। আর সেই কক্ষগুলোর মধ্যে যারা উপবিষ্ট হয়ে আছেন, তাদের প্রত্যেকেই সফলমণ্ডিত ব্যক্তি। মতিঝিলের ইউনুস টাওয়ারে ঢুকেই দেয়ালের একপাশে ঝুলন্ত নামফলকের মধ্যে ২০ নম্বর এ একটি নাম প্রজ্জলিত হয়ে আছে, আর তিনি

Top