কম্পিউটার সহজে ব্যবহার করতে জেনে নিন - ফিনটেক বাংলা
You are here
Home > অন্যান্য > কম্পিউটার সহজে ব্যবহার করতে জেনে নিন

কম্পিউটার সহজে ব্যবহার করতে জেনে নিন

আধুনিক জীবনে কম্পিউটারের ব্যবহার নেই এমন ক্ষেত্র খুঁজে পাওয়া কঠিন। ছোট থেকে বড়, ঘরে অথবা অফিসে সব জায়গায় এর প্রয়োজনীয়তা মানুষের মৌলিক চাহিদায় পরিণত হয়েছে। ব্যবহারকারীরা তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী এক একটি সফটওয়্যার বা টুল ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু অনেকেই এর সম্পর্কে বিশদ কোন ধারনা রাখে না। কিন্তু একটি কম্পিউটারে এমন কিছু বেসিক কৌশল আছে যেগুলো জানা থাকলে কম্পিউটারের ব্যবহার অনেক সহজ এবং অনেক ক্ষেত্রে দ্রুততর হবে।

সহজ স্ক্রিপ্টগুলো নিজেই লিখুন

কম্পিউটারে এমন কিছু অ্যাডভান্স স্ক্রিপ্ট আছে যেগুলো লিখতে প্রোগ্রামিং জানতে হয় না। যেমন উইন্ডোজ ইউজাররা অটোহটকি (AutoHotkey) ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের স্ক্রিপ্ট তৈরি করে রাখতে পারে। উদাহরণস্বরূপ; পিসি নিয়ন্ত্রণ করতে সহজ কীবোর্ড শর্টকাট তৈরি করা। অন্যদিকে ম্যাক ইউজাররা চাইলে বিল্ট ইন ইজি-টু-লার্ন অ্যাপলস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করে অ্যাডভান্স স্ক্রিপ্ট লিখতে পারে। আর কেউ যদি কোডিং করতে না চান তাহলে ম্যাকে অটোম্যাটর ব্যবহার করতে পারবে।

কীবোর্ড দিয়ে সবকিছু নেভিগেট করুন

সব কম্পিউটার ইউজাররাই কিছু কিছু কীবোর্ড শর্টকার্টের ব্যবহার জানে। কিন্তু একজন ভাল ইউজার হতে আরো অনেক জানতে হবে। অন্তত জিমেইল, মাইক্রোসফ্ট ওয়ার্ড, বেসিক টেক্সট বক্স প্রভৃতি আপনার প্রিয় প্রোগ্রামগুলির জন্য সাধারণ শর্টকাটগুলির ব্যবহার শিখুন। অনেক ক্ষেত্রে শর্টকাট মেশিনের গতির উন্নতি করে।

পাসওয়ার্ড ক্র্যাক করতে শিখুন

পাসওয়ার্ড ক্র্যাক করা শুধু যে হ্যাকারদের কাজ তা নয়। অনেক সময় ইউজাররা তাদের কম্পিউটারের নিরাপত্তা রক্ষা করতে বেশি কঠিন পাসওয়ার্ড দেয় এবং পড়ে তারা নিজেই ভুলে যায়। তাই ইউজারের জানার পরিধিকে আরও বৃদ্ধি করতে এ ধরনের দক্ষতা অর্জন করতে হবে। এতে কোন হ্যাকার সহজেই ব্যবহারকারীর কম্পিউটার হ্যাক করতে পারবে না। এ ক্ষেত্রে এনক্রিপশন এবং সেটিংস টুয়িক্স সম্পর্কে ধারনা রাখতে হবে।

বেসিক লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশন ব্যবহার করুন  

যদি কোন ইউজার অপারেটিং সিস্টেম পরিবর্তন না করে লিনাক্সের বেসিক কিছু ব্যবহার শিখতে চান তাহলে তা আপনার কম্পিউটারেই করা সম্ভব। বেসিক লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশন পরিচালনার দ্বারা অনেকেই এটি করে থাকে। লিনাক্সভিত্তিক ডাই প্রজেক্ট ব্যবহার করে লাইভ সিডি দিয়ে একজন ইউজার পিসি’র সমস্যা সমাধান করতে পারে, এমনকি পুরনো ও ধীরগতির পিসি’কে পুনরায় দ্রুত গতির করা সম্ভব।

কম্পিউটারের হিডেন ফিচার সম্বন্ধে জানুন

প্রতিটি অপারেটিং সিস্টেমে হিডেন থিংস থাকে; এগুলো শুধু খুঁজে নিতে হবে। যেমন উইন্ডোজ ইউজাররা যথাক্রমে উইন্ডোজ ৭, ৮, ১০ এর হিডেন ফিচার কিভাবে ওপেন করতে হয় তা শিখে পারে। কারোর যদি জানার আগ্রহ বেশি থাকে সেক্ষেত্রে উইন্ডোজ রেজিস্ট্রিতে এগুলো নিয়ে সার্চ করতে পারবে। ঠিক একইভাবে ম্যাকপ্রেমীরা লুকায়িত বৈশিষ্ট্যগুলি পরিবর্ধন করতে ওএস এক্স লায়ন, মাউন্টেন লায়ন, ইউযোমাইট, ম্যাভেরিক্স, ওএস এক্স টার্মিনাল থেকে এর সিস্টেমগুলো খুঁজে দেখতে পারবে।  

কম্পিউটার ব্যবহারের জন্য সময়সূচী তৈরি করুন

মেশিনটি কতক্ষণ ব্যবহার করবেন তার চিন্তা ইউজার না করে যদি মেশিনটি নিজেই করে তবে কেমন হবে? ব্যাপারটি বেশ কার্যকর বিশেষ করে যারা দৈনন্দিন একটি নির্দিষ্ট রুটিন অনুসারে চলে। প্রতিটি ওএসে একটি বিল্ট ইন টাস্ক শিডিউলার থাকে। ইউজাররা নিজেদের ইচ্ছে মত এটি সেট করতে পারবে। এতে ইন্টারনাল মাইন্টেন্যান্স, ছবি আপলোড থেকে শুরু করে অ্যালার্ম দেওয়ার সুবিধাও আছে।

কিভাবে রিসোর্স ব্যবহার করতে হয় তা বুঝে নিন

একটি মেশিনে বিভিন্ন ধরনের রিসোর্স থাকে এবং সবগুলো একটা আর একটার সাথে সম্পৃক্ত। যেমন একটি পিসি যখন স্লো মুডে কাজ করে তখন এর পিছনে সিপিউ, র‍্যাম অথবা হাই স্পিডের ইন্টারনেট দায়ী হতে পারে। তাই পিসি ব্যবহারের আগে অন্তত বেসিক রিসোর্স সম্পর্কে ভালও ধারনা নিন এবং এগুলোর ব্যবহার করার নিয়মগুলো জানুন।

মন্তব্য করুন

Top