ফেসবুকের নতুন সংযোজন "ডিজিটাল লিটারেসি লাইব্রেরী" - ফিনটেক বাংলা
You are here
Home > টেক বার্তা > ফেসবুকের নতুন সংযোজন “ডিজিটাল লিটারেসি লাইব্রেরী”

ফেসবুকের নতুন সংযোজন “ডিজিটাল লিটারেসি লাইব্রেরী”

ফেসবুক নিয়ে এসেছে ডিজিটাল সাহিত্য গ্রন্থাগার। তরুণ প্রজন্ম যেন ইতিবাচক ও দায়িত্বশীল উপায়ে ইন্টারনেট ব্রাউজ করে সেই লক্ষ্যেই গ্রন্থাগার উন্মোচন করেছে ফেসবুক। তরুণ সমাজ এবং মিডিয়া দলের সঙ্গে অংশীদারিত্বে হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির বার্কম্যান ক্লেইন সেন্টার ফর ইন্টারনেট অ্যান্ড সোসাইটিতে এই ডিজিটাল গ্রন্থাগার চালু করেছে ফেসবুক।

অতীতের তুলনায় বর্তমানে অনলাইনে তরুণদের সংখ্যা অনেক বেশি। ফলে অনেকেই এখন নানারকম ভুল তথ্যের মাধ্যমে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। তাই তরুণ প্রজন্মেকে নেতিবাচক দিক থেকে সরিয়ে নিতে “ডিজিটাল লিটারেসি লাইব্রেরী” চালু করেছে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম প্রতিষ্ঠানটি।

বলা হয়েছে, পাঠ্য বিষয় এবং ভিডিও বিনামূল্যে ডাউনলোড করা যাবে। শ্রেণিকক্ষ, স্কুলের সহ-শিক্ষা কার্যক্রম বা বাড়িতে ব্যবহারের জন্য তৈরি করা হয়েছে এই প্ল্যাটফর্ম।  ফেসবুক গ্রন্থাগারটিতে ১৮টি পাঠ্য বিষয় রেখেছে। আপাতত শুধু ইংরেজি ভাষায় চালু করা হলেও পরবর্তীতে আরও ৪৫টি ভাষায় ব্যবহৃত হবে এই গ্রন্থাগার।

১১ থেকে শুরু করে ১৮ বছর বয়সীদের জন্য তিনটি ভাগে ভাগ করা যাবে পাঠ্য বিষয়গুলো। গ্রাহকরা যাতে অনলাইনে অনলাইনে সম্পর্ক রাখতে পারে এবং ফিশিং স্ক্যাম শনাক্ত করতে পারে সে বিষয়গুলোই শেখানো হবে এই পদক্ষেপের মাধ্যমে।

এই প্ল্যাটফর্মটি ১০ বছরের বেশি সময় ধরে চালানো প্রশাসনিক গবেষণা এবং তরুণদের সঙ্গে পরামর্শ করেই বানানো হয়েছে। পাঠ্য বিষয়গুলোকে পাঁচ ভাগে ভাগ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে গোপনীয়তা ও মর্যাদা, পরিচয় শনাক্তকরণ, ইতিবাচক আচরণ, নিরাপত্তা ও সম্প্রদায় প্রবৃত্তি।

ফেসবুকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন যে তারা ফেসবুকের সেইফটি সেন্টারের অংশ হিসেবে চালু করেছে এই ডিজিটাল সাহিত্য গ্রন্থাগার। পাশাপাশি অলাভজনক, ক্ষুদ্র ব্যবসা এবং কমিউনিটি কলেজের শিক্ষার্থীদের ডিজিটাল সাহিত্যে দক্ষ করে গড়ে তোলার চেষ্টা করছে জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

মন্তব্য করুন

Top