বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তিতে নারীর ক্ষমতায়নে আইটিসির সাথে একযোগে কাজ করবে বেসিস - ফিনটেক বাংলা
You are here
Home > অতুলনীয় নারী > বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তিতে নারীর ক্ষমতায়নে আইটিসির সাথে একযোগে কাজ করবে বেসিস

বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তিতে নারীর ক্ষমতায়নে আইটিসির সাথে একযোগে কাজ করবে বেসিস

১৯ জুলাই ২০১৮ তে সোনারগাঁও হোটেলে আইটিসির উদ্যোগে মহিলা উদ্যোক্তাদের জন্য ‘কমনওয়েলথে শি-ট্রেডস’ প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে।     ছবি : সংগৃহীত

সম্প্রতি, রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেন্টারের (আইটিসি) উদ্যোগে বাংলাদেশের নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘কমনওয়েলথ শি-ট্রেডস’ শীর্ষক প্রকল্প উদ্বোধন করা হয়েছে।

এ প্রকল্প সম্পর্কে অবহিত করতে সাংবাদিকদের সাথে নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয় যেখানে উপস্থিত ছিলেন আইটিসির উইমেন অ্যান্ড ট্রেড প্রোগ্রামের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার নিকোলাস শালায়ফার, বেসিসের সিনোর ভাইস প্রেসিডেন্ট ফারহানা এ রহমান এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট (অ্যাডমিন) শোয়েব আহমেদ মাসুদ।

নারী উদ্যোক্তা এবং নারী মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য বাণিজ্য, আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশের লক্ষ্যে সক্ষমতা, ব্যবসায়ের উৎপাদনশীলতা বাড়ানোর লক্ষ্যে নিবিড় প্রশিক্ষণ এবং পরামর্শমূলক কার্যক্রমের মাধ্যমে ২০২০ সালের মধ্যে ৩৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিপণনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ৩০০০ নারী উদ্যোক্তার ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে কাজ করবে।

এ প্রকল্প আনুষ্ঠানিকভাবে এ বছরের এপ্রিল মাসে চালু হয় এবং লন্ডনে কমনওয়েলথ বিজনেস ফোরাম (সিবিএফ) এর উদ্বোধন করেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড মোয়েস। এই প্রকল্পে অর্থায়নে সহযোগিতা করছে যুক্তরাজ্যের ‘ডিপার্টমেন্ট অভ ইন্টারন্যাশনাল ডিভেলপমেন্ট (ডিএফআইডি)’।

 

 

Image may contain: 5 people, including Abu Nasher and ফারহানা এ. রহমানশি-ট্রেডস (SheTrades) কমনওয়েলথ বাংলাদেশ নারী উদ্যোক্তাদের ব্যবসায়ের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার দক্ষতা অর্জন করবে, যার মধ্যে ভূমি, বিকাশমান ব্যবসা এবং অন্যান্য প্রাতিষ্ঠানিক চ্যালেঞ্জগুলোর মধ্যে আর্থিক প্রাতিষ্ঠানিক প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

আইটিসির উইমেন অ্যান্ড ট্রেড প্রোগ্রামের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার নিকোলাস শালাইফার বলেন,  ‘বাংলাদেশে নারী উদ্যোক্তারা কমনওয়েলথের শি-ট্রেডসের মাধ্যমে সময়োপযোগী সমর্থন পাবেন। তাঁরা তাঁদের বিদ্যমান বাজার প্রতিনিধিত্বকে এগিয়ে নিয়ে যাবে এবং বৈশ্বিক বাণিজ্যের জন্য আরো বেশি সুযোগ পাবে।’

 

এ প্রকল্পের মাধ্যমে লিঙ্গীয় প্রতিক্রিয়াশীল নীতিগুলি বাস্তবায়ন এবং সর্বোত্তম পদ্ধতিগুলি ভাগ করার জন্য উন্নত সরঞ্জাম এবং তথ্য দিয়ে সরকারগুলোকে সাহায্য করবে। দুই বছর মেয়াদে আইটিসি বাংলাদেশের নারীদের ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে চালু করা হয়েছে শি-ট্রেডস। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের নারীদের ক্ষমতায়নে এ ক্ষেত্রে প্রকল্প বাস্তবায়নে সাহায্য করবে বেসিস। শুধু ঢাকাসহ দেশজুড়ে প্রকল্প বিস্তৃত করবে আইটিসি।

 

ফারহানা এ রহমান উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলেন, ‘আইটিসির সাথে দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করে আসছে বেসিস। শি-ট্রেডসের মতো বৃহৎ পরিসরের প্রকল্প বাস্তবায়নে বেসিস আইটিসির সাথে কাজ করবে। বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে নারীদের অংশীদারিত্ব দিন দিন বাড়ছে। শি-ট্রেডস প্রকল্পের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে নারীদের অবস্থান সুদৃঢ় করতে বেসিস আইটিসির সঙ্গে একযোগে কাজ করে যাবে।’

 

প্রাথমিকভাবে চারটি কমনওয়েলথ দেশ এ প্রকল্পের আওতায় আসবে  বাংলাদেশ, ঘানা, কেনিয়া এবং নাইজেরিয়াতে কৃষি, পোশাক ও সেবা খাতের নারী উদ্যোক্তাদের প্রতিযোগিতা বৃদ্ধিতে কাজ করবে।

প্রকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন SheTrades.com/commonwealth এই ঠিকানায়।

মন্তব্য করুন

Top