শীর্ষ পাঁচ গাড়ি বদলে দেবে পুরোনো ধারণাকে - ফিনটেক বাংলা
You are here
Home > টেক বার্তা > শীর্ষ পাঁচ গাড়ি বদলে দেবে পুরোনো ধারণাকে

শীর্ষ পাঁচ গাড়ি বদলে দেবে পুরোনো ধারণাকে

প্রথম দিকে গাড়ি ব্যয়বহুল ছিল বলে কিছু কিছু ব্যক্তিদের শখের যান হলেও পরে এটি সাধারণ মানুষের প্রয়োজনে পরিণত হয়। বর্তমানে জীবনযাত্রা এমন পর্যায়ে পৌঁছে গেছে যেখানে পুনরায় গাড়ি প্রয়োজনের পাশাপাশি শখ মেটাতেও ব্যবহৃত হয়। প্রযুক্তির উন্নতির আশীর্বাদে সবকিছুর মত গাড়িরও বেশ অগ্রগতি ঘটছে। আজ আমরা এমন পাঁচটি আধুনিক গাড়ি নিয়ে আলোচনা করব যা হয়তো আপনার পুরাতন ধারনার পাশাপাশি অভিরুচিরও পরিবর্তন করতে সক্ষম হবে।

টেঁসলা মডেল এসঃ

ইভি টেকনোলজি উদ্ভাবনের পর শিল্পপতিরা প্রথম ২০১৪ সালে আধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ নতুন ধাঁচের গাড়ি টেঁসলাকে বাজারে নিয়ে আসে। এই গাড়ীর অটোপাইলটটিকে ক্রমাগত আধুনিক করা হচ্ছে। গাড়ির চারপাশে ৩৬০ ডিগ্রি আবৃত্ত (কভার) করার জন্য অটোপাইলটটি ক্যামেরা, রাডার এবং অ্যাকোস্টিক সেন্সর ব্যবহার করে। দ্বিতীয় প্রজন্মের এই অটোপাইলট-সজ্জিত টেসলা এখন তার নিজের দ্বারাই লেন পরিবর্তন করতে পারে। যদিও এটি বাজারে সবচেয়ে উন্নত সিস্টেম তবু টেঁসলার কোম্পানী সতর্ক করে দিয়েছে যে গাড়ির চালকরা যেন গাড়ি চালানোর দায়িত্বগুলি সম্পূর্ণরূপে গাড়ির অটোপাইলটের উপর না বর্তায়। কারণ এটি সঠিকভাবে কার্য সম্পাদন করতে পারলেও পুরোপুরি স্বায়ত্তশাসিত নয়।

 

মার্সিডিজ এস ক্লাসঃ

অটোপাইলটের  জন্য টেঁসলা অনেক প্রশংসা কুড়ালেও মার্সিডিজ তার খুব একটা পিছিয়ে নেই। ইন্টেলিজেন্ট ড্রাইভ সিস্টেমের সাথে মার্সেডিজ এস ক্লাস, তার অ্যাডাপ্টিভ ক্রুজ কন্ট্রোল ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও এতে আছে হ্যান্ড-ফ্রি স্টিয়ারিং যা এক সাথে ১২ সেকেন্ড পর্যন্ত চালক ব্যতীত নিজেই সঠিক ভাবে গাড়িটি চালাতে পারে এবং এটি লেন পরিবর্তন করতে সক্ষম। প্রয়োজনে চালককে সঠিকভাবে গাড়ি চালানোর জন্য এটি রিমাইন্ডার টোন ও লাল বর্ণের এক ধরনের সতর্কীকরন বাতি ব্যবহার করে।

 

 

বিএমডব্লিউ ৭-সিরিজঃ

আধুনিক ডিজাইনের পাশাপাশি ভিতরে ও বাইরে অটোনোমাস (স্বশাসিত) বৈশিষ্ট্য থাকার কারণে বিএমডব্লিউ অনেক বেশি সুনাম অর্জন করেছে। একজন ক্রেতা সক্রিয় ড্রাইভিং সহকারী এবং বিভিন্নও অত্যাধুনিক প্যাকেজগুলির জন্য এটি অনায়াসে বেছে নিতে পারেন। চালক তার সুবিধার জন্য ৭-সিরিজের সেন্সরগুলো ব্যবহার করতে পারে। এর বিভিন্ন ফাংশন বিএমডব্লিউ-এর সিগনাল-কন্ট্রোল দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। ৭-সিরিজে বিশেষ কৌশলে গাড়ির চাবি দ্বারা নিয়ন্ত্রিত একটি ফাংশন রয়েছে যা বিএমডব্লিউকে স্ব-পার্কিং এর সুবিধা প্রদান করে এবং সেই সাথে পার্ক-প্লেসে গাড়ি রাখার জন্য নির্দিষ্ট স্থান খুঁজে বের করার সুবিধাও এতে আছে।

 

অডি এ৮ঃ

অডির স্লোগান ‘ট্রুথ ইন ইঞ্জিনিয়ারিং’ জার্মানী ব্র্যান্ডকে স্ব-ড্রাইভিং প্রযুক্তির জন্য বাজারে বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছে। এ-এইট নির্মাতারা প্রত্যাশা করছেন এ বছরের মধ্যে অটোনোমাস গাড়ি হিসেবে সবার কাছে তুলে ধরতে পারবেন। এটি বিশ্বের তৃতীয় প্রজন্মের গাড়ির মধ্যে বিবেচিত হবে যা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ১০ সেকেন্ডে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত গতি উন্নীত করতে সক্ষম। লেজারের সাথে রাডারের সমন্বয়, কয়েক ধরনের ক্যামেরা ও কিছু সেন্সর এই গাড়িটিকে বেশ উন্নতমানের করে গড়ে তুলেছে। 

 

 

ভলভো এস৯০ঃ

যখন বিশ্ব বিভিন্ন ধরনের আধুনিক গাড়ি তৈরি করতে ব্যস্ত ভলভো তখন আরো দ্রুত অগ্রসর হওয়ার জন্য নিজেই প্রস্তুতি নিচ্ছে। ইলেকট্রিক পাওয়ার বা স্ব-ড্রাইভিং গাড়িগুলির উপর যখন সবার নজর, সুইডিশ-চীনা ব্র্যান্ড তখন অন্যদের নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। ভলভো, এই বছর, সুইডেনের গোটেনবার্গে “ড্রাইভ মি” নামে একটি প্রোগ্রাম চালু করে। তার মধ্যে একটি হল পাইলট প্রোগ্রাম। ভলভোর এক্সসি৯০ এবং এস৯০ মডেলগুলোতে লার্জ অ্যানিমেল ডিটেকশন সিস্টেম ব্যবহার করে। ২০২০ সালের মধ্যে ভলভো গাড়ির দুর্ঘটনায় কারও মৃত্যু বা আহত হওয়ার ঘটনা শুন্যে নিয়ে আসার লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।  

মন্তব্য করুন

Top