২০১৭ সালের আইওটি-এর ৭টি ট্রেন্ডস্‌ - ফিনটেক বাংলা
You are here
Home > অন্যান্য > ২০১৭ সালের আইওটি-এর ৭টি ট্রেন্ডস্‌

২০১৭ সালের আইওটি-এর ৭টি ট্রেন্ডস্‌

বিভিন্ন ধরনের ট্রান্সফরমেশনাল (রূপান্তরমূলক) ট্রেন্ডের মধ্যে আইওটি (ইন্টারনেটঅবথিংস্‌)একটি যা ২০১৭ সালে ব্যবসায় বৈপ্লবিক পরিবর্তনের সাথে সাথে তার পরবর্তী সময়ে বাণিজ্যিকবিশ্বেনতুনধারারসৃষ্টিকরবে।অনেক প্রতিষ্ঠানআইওটিব্যবহারেরমধ্যে বেশকিছু দারুণ সুযোগ দেখতে পায়।এন্টারপ্রাইজগুলো ধারনা করে যে গ্রাহকের সাথে সম্পর্ক আরো উন্নত করতে আইওটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।আইওটিগুণগতমান ও উৎপাদনশীলতা উন্নতকরণের দ্বারা এবং খরচ, ঝুঁকি, চুরি হ্রাসের মাধ্যমে ব্যবসাবৃদ্ধিকরতে সক্ষম।আইওটির বিভিন্ন মডেলের সঠিক ব্যবহারের ফলে কোম্পানিগুলোর গ্রাহক সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশা করা যায়।এছাড়াও বিভিন্ন সংশোধনীর মাধ্যমে কিছু উল্লেখযোগ্য সুযোগ-সুবিধার উন্নতির দ্বারা গ্রাহকদের সন্তুষ্টি অর্জন সম্ভব।তাহলে আসুন,আইওটি-এর যে ট্রেন্ডগুলো২০১৭ সালে ব্যবসা এবং প্রযুক্তিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিল সেগুলোকে বিশ্লেষণ করে দেখা যাকঃ

আইওটি এবং ব্লকচেইনের অন্তর্বর্তী সম্পর্কঃ

ব্লব্লকচেইনএখন শুধু মাত্র একটি ধারনাই নয়, বরং এর থেকেও বেশি কিছু। বিভিন্ন ক্ষেত্রেই এর ব্যবহার দেখা যায়, উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে আইওটির কথা। অনেক বিশেষজ্ঞই একে ইন্টারনেট অফ থিংস এর স্কেলেবিলিটি, প্রাইভেসি এবং রিলায়াবিলিটির সংযোগের ছেঁড়া সুতা বলে মনে করেন।ব্লকচেইন প্রযুক্তি কোটি কোটি সংযুক্ত ডিভাইস ট্র্যাকিংয়ে (অনুসরণে) ব্যবহার করা যেতে পারে। আইওটি শিল্প নির্মাতারা উল্লেখযোগ্য পরিমানে সঞ্চয়ের লক্ষ্যে ডিভাইসগুলির মধ্যে লেনদেন প্রক্রিয়া এবং সমন্বয় প্রক্রিয়া কার্যকর করার অনুমতি দিয়েছেন। বিকেন্দ্রীভূত পদ্ধতি দ্বারা প্রতিটি ক্ষেত্রের অকৃতকার্যতা এড়িয়ে চলতে এবংডিভাইস সঠিকভাবে চালাতে আরো প্রাণবন্ত ইকোসিস্টেম (বাস্তুতন্ত্র) তৈরি হচ্ছে। ব্লকচেইন দ্বারা ব্যবহৃত ক্রিপ্টোগ্রাফিক এলগোরিদম গ্রাহকের তথ্য আরো বেশি গোপন রাখতে সক্ষম হবে। আরো উন্নতমানের নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা রক্ষার মাধ্যমে নতুন ধরনের অ্যাপ্লিকেশন, হার্ডওয়্যার, কর্মদক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০১৭ সালে আইওটি এবং ব্লকচেইনকে একত্রিত করা হয়েছে।

আইওটি ডিভাইস এবং আরো ডিডিওএস আক্রমণঃ

ফরেস্টার মনে করেন যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সাম্প্রতিক ডিডিওএস(ডিস্ট্রিবিউটেড ডিনাইল অব সার্ভিস) আক্রমণটি বড় ধরনের ১৬০০ ওয়েবসাইটে আঘাত হেনেছেফলে সংযুক্ত ডিভাইজটি বিশ্বের কাছে অনেকটা বিকৃত হয়ে যায়। এই আক্রমণটি আইওটি ডিভাইসগুলির দুর্বলতা নিশ্চিত করেছে কেননা, ডিস্ট্রিবিউটেড ডিনাইল অব সার্ভিস আক্রমণের ফলে টুইটার, নেটফ্লিক্স,পে-প্যাল ইত্যাদির মত শক্তিশালী সাইটগুলো অনেক সময়ের জন্য বিকল হয়ে পড়েছিল। এটি একটি অযাচিত আক্রমণের ফলাফল যেখানে অসংখ্য ইন্টারনেট এড্রেস (ঠিকানা) এবং ক্ষতিকারক সফ্‌টওয়্যার জড়িত ছিল। ডাইনের মতে, যা এই হামলার প্রধান শিকার সেটি ট্রাফিকের একটি সোর্স মিরাই বটনেট দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। এই সকল ঘটনা এটাই প্রমাণ করে যে আইওটির অসংখ্য ডিভাইজ যা দৈনন্দিন প্রযুক্তির শক্তি যেমনঃ ক্লোজ-সার্কিট ক্যামেরা, হোম ডিভাইজ ইত্যাদি সবই হাইজ্যাক করা হয় এবং সার্ভারের বিরুদ্ধে এদের ব্যবহার করা হয়েছে।

আইওটি এবং অনেক মোবাইল মুহূর্তঃ

আইওটি বর্তমান বাজারে ব্যবসার জন্য নতুন সুযোগ সৃষ্টি করছে এবং একটি প্রতিযোগিতামূলক সুবিধা প্রদান করছে। শুধু তথ্য সংগ্রহ নয়; কিভাবে,কোথায়, কখন, কেন সংগ্রহ করা হয়েছে সবকিছুকেইএটি স্পর্শ করে। এই প্রযুক্তি শুধুমাত্র ইন্টারনেট পরিবর্তন পরিবর্তন করছে না,ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত সবকিছুরই পরিবর্তন করছে। আরো কিছু মোবাইল মুহূর্ত থাকবে যেগুলো সংশ্লিষ্ট ডিভাইজগুলোকে যুক্ত করলে পরিলক্ষিত হবে। যেমন বাড়িতে ভার্চুয়াল উপায়ে বিভিন্ন সামগ্রী (হোম এপ্লায়েন্স) ব্যবহার করা হবে। এই সমস্ত সংযুক্ত ডিভাইসগুলির মধ্যে একটি সমৃদ্ধ তথ্য সরবরাহের সম্ভাব্যতা থাকবে যা পণ্য এবং সেবার মালিকদের দ্বারা তাদের ভোক্তাদের সাথে যোগাযোগ করার জন্য ব্যবহার করা হবে।

আইওটি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, এবং কনটেইনারঃ

একটি আইওটি পরিবেশে কোন্‌ কোন্‌ জিনিস বেশি প্রয়োজনীয় সেগুলো এআই (আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স) কোম্পানিগুলি কোটি কোটি তথ্য সংগ্রহ করে সেগুলোরবিশ্লেষণ করে বের করে। সাধারণ প্রেক্ষাপটটি ছোট অ্যাপ্লিকেশনের মতোই- সংগৃহীত ডাটার গবেষণা, পর্যালোচনা করে একটি ভাল সিদ্ধান্ত নেওয়া।

২০১৭ সালে আইওটিকে ক্লাউড সার্ভিস, এইজ ডিভাইস, এবং গেটওয়ের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। এই বছর আইওটির সমাধাগুলো আধুনিক মাইক্রোসার্ভিসে নির্মিত হচ্ছে।

আইওটি এবং সংযোগঃ

আইওটি-র বিভিন্ন অংশগুলি সেন্সরের সাথে সংযুক্ত বিভিন্ন ডিভাইজ যেমনঃ ওয়াইফাই, ব্লুটুথ, লো পাওয়ার ওয়াই-ফাই, ওয়াই-ম্যাক্স, ইথারনেট, লং টার্ম ইভোলিউশন(এলটিই), লাই-ফাই ইত্যাদি। ২০১৭ সালের ওয়্যারলেস কানেকশনের নতুন রূপ যেমন ৩জিপিপি-এর ন্যারোবন্ড,এনবি-আইওটি,  লোরাওয়ান, বা সিগফক্স পরীক্ষা করা হবে। আইওটি নির্মাতারা২০ টিরও বেশি ওয়্যারলেস কানেকশন তৈরি করবে যাআরো সঠিক ও উন্নতমানের নির্দেশনা দিবে।

আইওটি এবং ট্যালেন্ট-শর্টেজঃ

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান স্মার্ট শহর এবং শিল্প সুবিধাসহ আইওটির বিভিন্ন প্রকল্প চালু করছে যেগুলোর কর্মদক্ষতা বাড়ানোর কন্য অনেক সময়ব্যয় করতে হয়েছে। সবচেয়ে কঠিন কাজ হল আইওটির নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য অনেক কর্মী খুঁজতে হয়। টিইকে-সিস্টেম জরিপ অনুযায়ী, ৪৫ শতাংশ আইওটি কোম্পানি নিরাপত্তা পেশাদারদের এবং ৩০ শতাংশ ডিজিটাল মার্কেটার্‌স (কর্মী) খুঁজতে অনেক ঝামেলার সম্মুখীন হয়েছে। ২০১৭ সালে, শিল্পপতিরা আইওটি প্রশিক্ষণ এবং সার্টিফিকেশনগুলিতে বিনিয়োগ করবে এবং এটি টেক শিল্পের মূলধারার প্রশিক্ষণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে গড়ে তুলবে।

আইওটি এবং নতুন ব্যবসা মডেলঃ

একটি নতুন ব্যবসায়িক মডেলেভোক্তাদের সাথে ডিভাইসের শেয়ারিং খরচ সহ মালিকানা খরচ হ্রাস এবং কম ঝামেলাপূর্ণ ইউএক্স তৈরি আনন্দদায়ক। ২০১৭ সালে আধুনিক বাজারে আরো নতুনত্ব দেখা যাবে। এর মধ্যে একটি মূল উপাদান হল নির্দিষ্ট পণ্যের সাথে বহু ধরনের সেবা প্রদান করা হবে যেমনঃ অ্যামাজনের অ্যালেক্সা ডিভাইজ ভয়েজ রিকগনিশন, মিউজিক স্ট্রিমিং, উবার বুকিং সহ বিভিন্ন কাজ করতে পারবে।

 

মন্তব্য করুন

Top